ব্রেকিং তাজা ব্রেকিং : বিএনপির তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে !

বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে দায়ের হওয়া ‘গায়েবি’ মামলার তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনামতে বুধবার (০৭ নভেম্বর) বেলা ১১টায় এ তালিকা দেন বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন- বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট জিয়াউদ্দিন জিয়া, পাবনা জেলা বিএনপি নেতা মো. সালাহ উদ্দিন প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বের হয়ে তাইফুল ইসলাম টিপু বলেন, মহাসচিবের একটি চিঠিসহ গায়েবি মামলার তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ এ তালিকা গ্রহণ করেছেন।

তিনি বলেন, আমরা আংশিক তালিকা পৌঁছে দিয়েছে। এ তালিকায় ১০৪৬টি মামলার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। ২/১ দিনের মধ্যে আরও তালিকা দেওয়া হবে।

৭ নভেম্বর উপলক্ষে দলের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিএনপি। একই সঙ্গে ফাতেহা পাঠ করে তার আত্মার শান্তি কামনা করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা।

বুধবার (০৭ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর রাজধানীর শেরে বাংলানগরে জিয়ার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে সেখানে সমাধি প্রাঙ্গণে ওলামাদলের উদ্যোগে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

এদিকে ৭ নভেম্বর উপলক্ষে বিএনপি সাত দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে ৭ নভেম্বর ভোরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দেশের সব জেলা কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দেওয়া, পরদিন ৮ নভেম্বর বেলা ২টায় রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভা উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া বিএনপির সহযোগী সংগঠনগুলো আলাদাভাবে আলোচনা সভা, আলোকচিত্র প্রদর্শনী, রচনা প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করবে বলে জানিয়েছে দলীয় সূত্র।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। এক পর্যায়ে এক অভ্যূত্থানে সেনানিবাস থেকে মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান ৭ নভেম্বর মুক্ত হন।

ওই ঘটনায় ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসা জিয়াউর রহমান পরবর্তীতে রাষ্ট্রক্ষমতায় আসেন। একই সঙ্গে গঠন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। সেই থেকে বিএনপি ৭ নভেম্বরকে ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ হিসেবে পালন করে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *